অভিনেতা নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকীর স্ত্রী আলিয়া সিদ্দিকী ওরফে অঞ্জনা কিশোর পাণ্ডে ডিভোর্স চেয়ে দিন কয়েক আগেই নোটিশ পাঠিয়েছেন। কী এমন হল যে বিচ্ছেদের পথে হাঁটতে হচ্ছে অঞ্জনাকে? কেনই বা ১০ বছরের দাম্পত্যে ফাটল ধরল? অভিনেতা চুপ থাকলেও মুখ খুলেছেন তাঁর স্ত্রী।

বম্বে টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অঞ্জনা জানান, বেশ কিছু বছর ধরেই তাদের বিবাহিত জীবন সুখের যাচ্ছিল না। অনেক কিছু সহ্য করতে হয়েছে তাঁকে, সে সব ঘটনার বেশিরভাগই প্রকাশ্যে বলা তাঁর পক্ষে অস্বস্তিকর। লকডাউনের এই দীর্ঘ সময়ে তাঁর সঙ্গে ঘটা প্রতিটি ঘটনা নিয়ে ভাববার সময় পেয়েছেন তিনি। অবশেষে বুঝতে পেরেছেন এই বিয়ে টিকিয়ে রাখার আর কোনও মানে নেই।

নওয়াজকে বিয়ে করার পর নিজের নাম এবং ধর্ম পরিবর্তন করলেও কিছু দিন আগে নিজের পূর্ব নাম অঞ্জনা কিশোর পাণ্ডেতেই ফিরে গিয়েছেন তিনি। অঞ্জনা এবং নওয়াজের দুই সন্তান রয়েছে, তাদের দায়িত্ব কে নেবে ? অঞ্জনা বলেন, অবশ্যই আমি চাইব আমার সন্তানেরা আমার সঙ্গে থাকুক।

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি জানান, কিছু দিন আগে আমি আমার বোনকে হারিয়েছি, তার পর থেকেই মায়ের শরীর খারাপ। মুজফফরনগরে আপাতত ১৪ দিনের হোম কোয়রান্টিনে রয়েছেন নওয়াজ। তবে বিয়ে কেন ভাঙতে চলেছে তা নিয়ে কার্যত মুখে কুলুপ এঁটেছেন অভিনেতা।

আরও পড়ুন – ‘পাতাল লোক’ বিতর্ক: অনুষ্কা শর্মার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

আরও পড়ুন – গুলাবো সিতাবো – ট্রেলার মুক্তির সাথে সাথেই ভাইরাল

আরও পড়ুন – আসছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *