রাম মন্দির নিয়ে ভবিষ্যতে বিতর্ক এড়ানোর লক্ষ্যে রাম জন্মভূমির ইতিহাস ও তথ্যাদি তালিকাভুক্ত করে একটি টাইম ক্যাপসুল মন্দির নির্মাণের স্থানে কয়েক হাজার ফুট নীচে স্থাপন করা হবে। মন্দির বিতর্ক নিয়ে কোর্টে দীর্ঘকাল মামলা চলেছে। রাম জন্মভূমি নিয়ে এই সংগ্রাম, বর্তমান এবং আগামী প্রজন্মকে একটি শিক্ষা দিয়েছে। এ কারনেই রাম মন্দির নির্মাণ স্থানে একটি টাইম ক্যাপসুল প্রায় ২,০০০ ফুট নিচে স্থাপন করা হবে। ভবিষ্যতে যদি কেউ মন্দিরের ইতিহাস সম্পর্কে অধ্যয়ন করতে চান এবং এটা নিয়ে যাতে কোনও নতুন বিতর্ক সৃষ্টি না হয় এই সম্পর্কিত সমস্ত তথ্যাদি পাওয়া যাবে এই ক্যাপসুলে,” বলেন রাম জন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের সদস্য কামেশ্বর চৌপাল।

তিনি জানিয়েছেন যে, এই টাইম ক্যাপসুলটি মাটির নীচে রাখার আগে একটি তাম্র পত্রের (তামার পাত্র) মধ্যে স্থাপনা করা হবে।

কামেশ্বর চৌপাল আরও বলেন যে, ভূমি পুজোর জন্য সারাদেশের বিভিন্ন তীর্থস্থান থেকে মাটি এবং পবিত্র নদীগুলির থেকে জল ‘অভিষেক’-এর জন্য অযোধ্যায় আনা হচ্ছে। “যেখানে যেখানে ভগবান রাম পরিদর্শন করেছিলেন সেই সমস্ত তীর্থের পবিত্র নদীর জল এবং মাটি ‘ভূমি পূজনে’ অভিষেক চলাকালীন ব্যবহার করা হবে। আমাদের স্বেচ্ছাসেবকরা সেগুলি সারা দেশ থেকে অযোধ্যায় পাঠাচ্ছেন।”

৫ই অগাস্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই পুজোর পরে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন বলে জানা যাচ্ছে।

মন্দিরের ট্রাস্টের সভাপতি মহন্ত নৃত্য গোপাল দাসের মতে আগামী ৫ অগাস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের (ভূমি পূজন) অনুষ্ঠানের পরে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের নির্মাণ কাজ শুরু হবে। ওই অনুষ্ঠানে অনেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার মন্ত্রীরা এবং আরএসএসের প্রধান মোহন ভাগবতও অংশ নেবেন বলে জানা গিয়েছে।

 

তথ্যসূত্রঃ এনডিটিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *