আশঙ্কা ছিলই। শেষমেশ সোমবার আইসিসির বৈঠকে সিদ্বান্ত নেওয়া হল চলতি বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত রাখার।

ইউরো কাপ, অলিম্পিক, অনূর্ধ্ব-১৭ ফিফা মহিলা বিশ্বকাপের পর এবার করোনা মহামারির জেরে স্থগিত হয়ে গেল গেল আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ।

আগামী ১৮ অক্টোবর, অস্ট্রেলিয়ায় চলতি বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার কথা ছিল । সেই সময়ের মধ্যে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার সম্ভাবনা কম বুঝেই পিছনে হাঁটে আইসিসি। বিশ্বকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ১৫ নভেম্বর।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ড আগেই জানিয়েদিয়েছিল করোনা মহামারির মাঝে তাদের পক্ষে এতবড় টুর্নামেন্ট নিরাপদে আয়োজন করা সম্ভব হবে না। বিশ্বের এত ক্রিকেটারদের এনে এক জায়গায় রেখে বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্ট করা কার্যত অসম্ভব। প্রায় দু’মাসের বেশি সময় ধরে ঝুলে ছিল বিশ্বকাপের সিদ্ধান্ত। গত দু’টি বোর্ড মিটিংয়ে টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা থাকলেও শেষে টুর্নামেন্ট আপাতত স্থগিত রাখার নীতি অবলম্বন করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা। তবে দ্বি-পাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ ও আইপিএল নিয়ে ক্রমাগত চাপ বাড়তে থাকায় সোমবারের বৈঠকেই জল্পনায় ইতি টেনে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আইসিসি।

২০২১-এর টি-২০ বিশ্বকাপ ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। ভারতেই আয়োজিত হবে ২০২৩ আইসিসি ওয়ান ডে বিশ্বকাপ। মাঝে ২০২২ সালে কোনও আইসিসি ইভেন্ট ছিল না। সোমবারের বৈঠকে পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা জানিয়ে দেয়, ২০২২ সালে হবে টি-২০ বিশ্বকাপ। অর্থাৎ, চলতি বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ দু’বছরের জন্য পিছিয়ে দেওয়া হল।

আইসিসি জানায় যে, ২০২১, ২০২২ ও ২০২৩ সালের তিনটি আইসিসি ইভেন্টই অনুষ্ঠিত হবে অক্টোবর-নভেম্বরে। তিনটি টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ১৪, ১৩ ও ২৬ শে নভেম্বর। উল্লেখ্য, ২০২৩ সালের ওয়ান ডে বিশ্বকাপ, বছরের শুরুর দিকে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিছুটা বাড়তি সময় দিতেই তা বছরের শেষ দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তথ্যসূত্রঃ হিন্দুস্থান টাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *