”সলমন ও তাঁর পরিবার তাঁর কেরিয়ার নষ্টে করে দিয়েছে” অভিযোগ এনেছিলেন দাবাং-এর পরিচালক অভিনব কাশ্যপও।

সুশান্তের মৃত্যুতে তাঁর পরিবারের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে, কিন্তু শুরু হয়ে গিয়েছে বলিউডে প্রতিবাদের মিছিল। বহু তারকারাই এগিয়ে এসে নিজেদের সঙ্গে হওয়া অন্যায়ের কথা জানা‌চ্ছেন। একের পর এক স্বজনপোষণ এবং বহিরাগতকে প্রাপ্য মর্যাদা না দেওয়া নিয়ে তরজা এখন তুঙ্গে। এই প্রতিবাদের আবহেই সলমন খানের দিকে অভিযোগের আঙুল তুললেন প্রয়াত অভিনেত্রী জিয়া খানের মা রাব্বিয়া আমিন। একটি ভি়ডিওতে তিনি অভিযোগ করেছেন জিয়ার মৃত্যুর তদন্ত, ক্ষমতার জোরে আটকে দিয়েছেন সলমন খান। তাঁর হস্তক্ষেপেই সুরজ পাঞ্চালিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেনি পুলিশ, তাঁকে মুক্তি দিয়েছ।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে জিয়ার মা বলেন, বাইরে থেকে আসা শিল্পীকে প্রকাশ্যে হেনস্থা করা খুনেরই শামিল। এই ঘটনা তাঁকে তাঁর মেয়ে জিয়ার আত্মহত্যার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে।তাঁর কথায়, “জিয়ার মৃত্যুর পরে আমাকে লন্ডন থেকে ডেকে এনেছিল সিবিআই। তাঁরা জানিয়েছিল জিয়ার মৃত্যুর বিষয়ে কিছু তথ্য পাওয়া গিয়েছে। আমি দেশে ফেরার পর ওই সিবিআই অফিসাররা আমায় জানায়, ”সলমন খান রোজ ফোন করে সুরজ পাঞ্চালিকে জেরা না করার জন্য অনুরোধ করে তাঁদের। সলমন জানিয়েছেন, সুরজের উপর আমি প্রচুর টাকা বিনিয়োগ করেছি, ওঁকে বিরক্ত করবেন না।”

সুশান্তের আত্মহত্যার ঘটনায় তাই তিনি বলিউডে ঘটা নিত্যদিনের অন্যায়ের বিরুদ্ধে উঠে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করার ডাক দিচ্ছেন। উল্ল্যেখ্য, সলমন ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে দিন কয়েক আগে কেরিয়ার নষ্টের অভিযোগ এনেছিলেন দাবাং-এর পরিচালক অভিনব কাশ্যপও।

আরও পড়ুন – সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর সালমান খান, করণ জোহর ও একতা কাপুরসহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে

আরও পড়ুন – সুশান্ত সিং রাজপুত : মুম্বাইয়ের ফ্ল্যাটে তাঁকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে

ছবি এবং তথ্যসূত্রঃ নিউজ১৮

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *