ভারতে টেলিকম এবং ইন্টারনেটের জগতে বিপ্লব এনেছে রিলায়েন্স জিও। আবারও প্রযুক্তির নয়া চমক মুকেশ আম্বানির সংস্থার। বুধবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের ৪৩ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় ‘জিও গ্লাস’‌–এর (Jio Glass) আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করল তারা। এটির মাধ্যমে ভারতে 3D হলোগ্রাফিক ভিডিয়ো কলিংয়ের সুচনা হতে চলেছে।

Jio Glass দেখতে সাধারণ চশমার মতো, তবে এটি ফোনের সঙ্গে যুক্ত করে ভিডিয়ো কল এবং মিটিং করলে 3D হলোগ্রাফিক পরিবেশের সুবিধা পাওয়া যাবে। ফলে ফোনের ওপারে থাকা ব্যক্তিকে দেখা যাবে চোখের সামনে। বাস্তবের সঙ্গে মিশে যাবে ভার্চুয়াল জগৎ। এই প্রসঙ্গে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের প্রেসিডেন্ট কিরণ টমাস বলেন, ‘Jio Glass উন্নততম প্রযুক্তির এক উদাহরণ যেখানে ব্যবহারকারীরা সর্বোৎকৃষ্ট মিক্সড রিয়্যালিটি পরিষেবা পাবেন। Jio Glass-এর মাধ্যমে ভূগোল শেখার প্রচলিত প্রথা ইতিহাসে পরিণত হবে।’

জিও-এর সহযোগী সংস্থা Tesseract এই Jio Glass-এর ডিজাইন করেছে। মোট ২৫টি মিক্সড রিয়্যালিটি অ্য়াপ এটিতে সাপোর্ট করবে। ফলে প্রথম ব্যবহারেই এই নতুন গেজেটটি ব্যবহারকারীরা পছন্দ করবে বলে আশাবাদী জিও কর্তৃপক্ষ।

Jio Glass-এর বৈশিষ্ট্য:

Jio Glass দেখতে সাধারণ চশমার মতো। ওজন মাত্র ৭৫ গ্রাম। এতে রয়েছে ইনবিল্ড সাউন্ড সিস্টেম। যে কোনও ফোনের সঙ্গে এই ডিভাইসটি সহজেই কানেক্ট করা যাবে। বিনোদন, শিক্ষা, গেমিং, শপিং এবং প্রোডাক্টিভিটি-সহ বিভিন্ন বিষয়ের মোট ২৫টি অ্যাপ এতে ডাউনলোড করা যাবে। এটি স্মার্টফোনের সঙ্গে যুক্ত করে সামঞ্জস্যপূর্ণ অ্যাপস দ্বারা গ্রাহককে 3D দুনিয়ায় নিয়ে যাবে। এছাড়া ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমে সহজে ফোনকল করার সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা ।

Jio Glass-এর দাম কত এবং কবে পাওয়া যাবে:

জিও কর্তৃপক্ষ তাদের এই নতুন গ্যাজেটের দাম সম্পর্কে এদিনের অনুষ্ঠানে কিছু ঘোষণা করেনি । কবে  থেকে এটি বাজারে পাওয়া যাবে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, Jio Glass-এর দাম হতে পারে ২০০ মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যার দাম দাঁড়াতে পারে ১৪ হাজার টাকার কাছাকাছি। খুব শীঘ্রই বাজারে Jio Glass চলে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *