সুখবর! ভারতেই তৈরি হতে চলেছে Apple-এর স্মার্টফোন। এর থেকেও বেশি খুশির খবর হল, গ্লোবাল ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের জন্য এতদিন যে ২০ শতাংশ ট্যাক্স দিতে হত। এবার থেকে ভারতে তৈরি হওয়ার কারণে সেই ২০ শতাংশ আর দিতে হবা না। ফলে, ভারতে এবার থেকে আই ফোন বেশ সস্তায় পাওয়া যাবে ।

এই মুহূর্তে ৫০ কোটি ভারতবাসী স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকেন। এই পরিসংখ্যানটা যে কোনও স্মার্টফোন সংস্থার কাছে  বেশ লোভনীয়। Xiaomi থেকে শুরু করে Samsung, Vivo এবং অন্য আরও বেশ কিছু স্মার্টফোন সংস্থা আগেই ভারতে তাঁদের প্রভাব বৃদ্ধি করতে অনেক টাকা লগ্নি করেছে। আর এসময়েই ভারতে iPhone-এর স্মার্টফোন তৈরি যে, প্রতিযোগিতা আরও বেশ কিছুটা বাড়াবে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

জানা যাচ্ছে চেন্নাইয়ের ফক্সকন প্ল্যান্টে তৈরি হবে iPhone 11-এর ওই মডেল, যা আগে চিনেই তৈরি করা হত। Apple তাদের iPhone 11 স্মার্টফোনের অ্যাসেম্বল ভারতে ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে। ভারতীয় বাজারে উৎপাদন বাড়ানোর পরিকল্পনাও রয়েছে বিশ্বের জনপ্রিয় এই স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের। অন্যদিকে Apple তাদের নয়া iPhone SE 2020 ফোনটি বেঙ্গালুরুর উইস্ট্রন প্ল্যান্টে অ্যাসেম্বল করতে চলেছে।

তবে আগের তুলনায় ভারতে এই মুহূর্তে বিক্রি বেশ কিছুটা বাড়াতে সক্ষম হয়েছে iPhone।  ইতিমধ্যেই Apple ভারতে, তাঁদের iPhone 6s, iPhone 7 এবং iPhone XR ফোনগুলি বিক্রি করেছে বেশ ভালো হারেই।

গত মাসেই পূর্ব লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় চিনা আক্রমণে বেশ কিছু ভারতীয় জওয়ান শহিদ হওয়ার পর চিনা পণ্য নিষিদ্ধ করার দাবি জোরদার হয় দেশজুড়ে। ভারতে চিনা ব্র্যান্ডগুলির জাঁকিয়ে ব্যবসা করাকে এই মুহূর্তে ঠিক ভাবে নিচ্ছেন না ভারতীয়রা। ভারতে Apple-এর iPhone 11 তৈরীর এই প্রয়াস যে চিনা ব্র্যান্ডগুলিকে অনেকটাই ধাক্কা দেবে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলও অ্যাপেল-এর এই প্রয়াসকে কেন্দ্রীয় সরকারের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র অন্যতম সেরা উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরেছেন। এতদিন ধরে iPhone-এর বেশিরভাগ মডেলই চিনে অ্যাসেম্বল হওয়ার পর ভারতে আসত। কিন্তু এবার থেকে ভারতেই অ্যাসেম্বল হতে চলেছে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাপেল-এর স্মার্টফোন।

তথ্যসূত্রঃ এই সময়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *