সারা বিশ্ব জুড়ে বিশেষত এশীয় দেশগুলিতে হলুদ ( Turmeric ) মশলা হিসাবে ব্যবহৃত হয়। ভারতীয় আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলুদ। বৈজ্ঞানিক গবেষণায় দেখা গেছে যে হলুদের অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাল, অ্যান্টিফাঙ্গাল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিক্যান্সার ক্ষমতা রয়েছে এবং বিভিন্ন মারন-রোগ, বাত, আলঝাইমার রোগ এবং রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিস সহ অন্যান্য দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতার ঝুঁকি হ্রাস করার সম্ভাবনা রয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে যে হলুতে উপস্থিত কারকিউমিন ( Curcumin ) যৌগ কোলন, ত্বক, মুখ এবং অন্ত্রের ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করতে বিশেষভাবে কার্যকর এবং এটিতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যও রয়েছে।

শুকনো হলুদ গুঁড়ো আমরা দীর্ঘদিন ধরে রান্নায় মশলা হিসেবে ব্যবহৃত করে আসছি । হলুদের রয়েছে নানান উপকারি গুণ। হলুদের গুঁড়ার পাশাপাশি কাঁচা হলুদও সমান উপকারী। প্রতিদিন হালকা গরম দুধে হলুদ মিশিয়ে খেলে তা সর্দি বা ঠাণ্ডা লাগার সমস্যার হাত থেকে বাঁচাতে পারে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সক্ষম।

হলুদের কিছু উপকারিতা:

হলুদের মধ্যে আছে বিটা ক্যারোটিন, অ্যাসকরবিক অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম, ফাইবার, আয়রণ, নিয়াসিন, পটাসিয়াম, দস্তা, ফ্ল্যাভোনয়েডস এবং আরও অন্যান্য উপাদান।

  • হলুদ জ্বালা বা প্রদাহ হ্রাস করে।
  • বাতজনিত সমস্যা কম করে।
  • হলুদ ব্যথা উপশম করে।
  • লিভার ফাংশনের উন্নতি ঘটায়।
  • কোন কোন ক্ষেত্রে ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে।
  • হজমের সমস্যা দূর করে।

এছাড়াও আরও অনেক গুণ রয়েছে এর মধ্যে।

আরও পড়ুন – জানেন কি কফির কত গুণ ? 

হলুদ কি ভাবে খাবেন:

গোল মরিচের সাথে হলুদ মিশিয়ে খেলে এর উপকারিতা বেশি পাওয়া যায়। তবে চেষ্টা করুন কাঁচা হলুদের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে।আপনার যদি শুকনো কাশির সমস্যা থাকে তবে এটি প্রতিদিন কাঁচা হলুদের সাথে এক চা চামচ ঘি মিশিয়ে খেয়ে নিন, উপকার পাবেন। গরম দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে পান করলে অনেক বেশি উপকার পেতে পারেন। কারণ এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি অনেক শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। তাই একে গোল্ডেন মিল্কও বলা হয়। বিশেষ করে শ্বাসনালীর সংক্রমিত ব্যক্তিদের হলুদ দুধ খাওয়া উচিত। এটি প্রাকৃতিক অ্যান্টি-সেপ্টিক হিসেবে ঠাণ্ডা বা জ্বর থেকে আপনাকে দূরে রাখে। এটি রক্তের দূষিত উপাদান বের করতে সক্ষম। এছাড়াও ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল রাখতে সহায়তা করে।  বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় হলুদ খুবই উপকারী।

আরও পড়ুন – সতর্ক থাকুন এমন কতগুলি খাবার সম্পর্কে, না জানলে আপনার বিপদও ঘটাতে পারে

আরও পড়ুন – মাংসের থেকেও বেশি খাদ্যগুণ পাওয়া যায় এই নিরামিষ খাবারগুলিতে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *