২০১১ সালের ২ এপ্রিল এক ঐতিহাসিক মুহূর্ত, যখন ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে দ্বিতীয়বারের জন্য বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। কিন্তু সেই ম্যাচ নিয়েই বিতর্ক উস্কে দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিন্দানন্দ আলুথগামাগে। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে শ্রীলঙ্কার বর্তমান ক্রীড়ামন্ত্রী দুল্লাস আলাহাপ্পেরুমা এই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এই কাজে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতি দু’সপ্তাহ অন্তর এই কমিটিকে তদন্তের রিপোর্ট জমা দিতে হবে বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে আলুথগামাগে দাবি করেন, “২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে গড়াপেটা হয়েছিল, আমরা বিক্রি হয়ে গিয়েছিলাম। আমি তখন ক্রীড়ামন্ত্রী ছিলাম। আমার এই অভিযোগ সত্ত্বেও কেউ শোনেনি, পুরো ম্যাচটা পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কোনও ক্রিকেটার হয়তো যুক্ত ছিলেন না। কিন্তু বেশ কিছু আধিকারিক এতে যুক্ত ছিলেন।”

এই অভিযোগের পরে অবশ্য মুখ খুলেছেন সেই বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার  দলের অধিনায়ক কুমার সঙ্গকারা ও সহ অধিনায়ক মাহেলা জয়বর্ধনে। সঙ্গকারা বলেন, “আলুথগামাগে যে অভিযোগ করেছেন, তার সপক্ষে প্রমাণ দেখাতে পারবেন তো উনি, কারণ আইসিসি প্রমাণ চাইবে। তখন আবার নিজের অবস্থান থেকে সরে আসবেন না তো।”

শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রিকেটার অরবিন্দ ডিসিলভা বলেছেন, সচিন তাঁর ক্রিকেট জীবনে একমাত্র একটি বিশ্বকাপই জিতেছেন। তাই অন্তত তাঁর স্বার্থে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ও আইসিসির উচিত এই ম্যাচ সত্যিই গড়াপেটা হয়েছিল কি না, সেটা খতিয়ে দেখা। একটি সংবাদমাধ্যমে ডিসিলভা জানিয়েছেন, ‘‌যে কেউ উল্টোপাল্টা অভিযোগ করে পার পেয়ে যাবে, সেটা তো হতে পারে না, তাই না। আমার মনে হয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড, আইসিসি ও ‌শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড – এর উচিত এই বিষয়ে তদন্ত করে দেখা। আমরা যেমন আমাদের সময়ে বিশ্বকাপ জয় উপভোগ করেছিলাম, তেমনই এই বিশ্বকাপ জয় উপভোগ করেছিলেন সচিনের মতো খেলোয়াড়। সারাজীবনের মতো ওর কাছে এই মুহূর্তটা স্পেশাল হয়ে আছে। অন্তত ওর মনের শান্তির জন্য তদন্ত করে দেখাই উচিত।

শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর মন্তব্য উড়িয়ে দিয়ে শ্রীলঙ্কা দলের সদস্য মাহেলা জয়বর্ধনে, কুমার সঙ্গকারা গড়াপেটার কোনও অভিযোগ মানতেই চাননি।

ছবি – টাইমস অফ ইন্ডিয়া

তথ্যসূত্রঃ দ্য ওয়াল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *